ইলাহ্ শব্দের অর্থ – শায়েখ আব্দুল্লাহ আল মুনির

ইলাহ্ শব্দের সঠিক অর্থ – শায়েখ আব্দুল্লহ আল মুনীর এর প্রবন্ধ সহ অন্যান্য প্রবন্ধ পড়ুন এবং আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন যেন তারাও জানতে পারে

শব্দিকভাবে ইলাহ শব্দটি হয়তো ওয়ালিহা থেকে এসেছে অথবা আলিহা থেকে এসেছে। (লিসানুল আরব) আরবী ভাষায় এই দুটি শব্দ বিভিন্ন অর্থে ব্যাবহৃত হয়।

বলা হয়, সে হতবাক বা হয়রান হয়েছে, “শিশু ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে তার মায়ের নিকট ছুটে গিয়েছে” “মা তার সন্তানের প্রতি মমতা প্রকাশ করেছে” “তার নিকট আশ্রয় নিয়েছে” “তাকে দেখে ভীত হয়েছে” ইত্যাদি।

লিসানুল আরব, মু’জামুল ওয়াসীতে ইত্যাদি আরবী অভিধানে এভাবেই বলা হয়েছে। লিসানুল আরবে আরো বলা হয়েছে, ইলাহ্ অর্থ হলো, যার নিকট সমস্ত সৃষ্টি তাদের নিজ নিজ প্রয়োজন পূরণের জন্য ধরনা দেয়। যে কোনো বিপদে পতিত হলে তার নিকট মিনতি করে এবং তার নিকট আশ্রয় গ্রহণ করে। যেভাবে শিশু তার মায়ের নিকট আশ্রয় গ্রহণ করে। মোট কথা শাব্দিকভাবে ইলাহ অর্থ হবে অসীম ও অনন্ত ক্ষমতার অধিকারী এমন একটি সত্ত্বা যার সুবিশাল সৃষ্টিরাজি এবং সুনিপুন কর্ম-কৌশলের রহস্য অবলোকন করে সমস্ত সৃষ্টি হতবাক ও হয়রান হয়ে যায়। তার ক্ষমতা ও সৃষ্টিকর্মের রহস্য উম্মোচন করা কারো পক্ষে সম্ভব হয় না। যিনি সৃষ্টির প্রতি মমতা প্রদর্শন করেন আর তার নিকট সকল সৃষ্টি তাদের বিপদ-আপদে আশ্রয় গ্রহণ করে এবং নিজেদের প্রয়োজন পূরণের জন্য প্রার্থনা করে।

ইলাহ্ শব্দের পারিভাষিক অর্থও মূলত এটাই। আর তা হলো কারো অতিপ্রকৃতিক শক্তিতে বিশ্বাস করা এবং তার নিকট বিভিন্ন প্রয়োজনে প্রার্থনা করা। উপরে আমরা ইবাদত শব্দের অর্থ সম্পর্কে বলেছি কারো অতিপ্রাকৃতিক ক্ষমতায় বিশ্বাস করা এবং তার নিকট মঙ্গল-অমঙ্গলের ব্যাপারে প্রার্থনা করাই ইবাদত। তার সাথে সমন্বয় সাধন করলে দেখা যাবে, যার ইবাদত করা হয় তাকে মূলত ইলাহ হিসেবে গ্রহণ করা হয়। অন্য কথায় কাউকে ইলাহ হিসেবে গ্রহণ করা অর্থ তার ইবাদত করা।

লিসানুল আরবে বলা হয়েছে, “যে কেউ আল্লাহ ছাড়া অন্য যা কিছুর ইবদাত করে তার নিকট তাই ইলাহ হিসেবে গণ্য।” আরো বলা হয়েছে, “কোনো কিছু কখনই ইলাহ্ হবে না যতক্ষণ না সেটার ইবাদত করা হয়। সুতরাং পরিভাষিকভাবে যা কিছুর ইবাদত করা হয় তাই ইলাহ। অতএব, ইলাহ্ শব্দের অর্থ সম্পূর্ণভাবে ইবাদত শব্দের অর্থের উপর নির্ভরশীল। এই অধ্যায়ের শুরুতে আমরা ইবাদত শব্দের যে বিস্তারিত ব্যাখ্যা বর্ণনা করেছি “ইলাহ” শব্দের ক্ষেত্রেও সেই একই ব্যাখ্যা প্রযোজ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.