সিফাতুল জান্নাহ কবিতা । দুনিয়ার ভাবনা ছেড়ে জান্নাতে সংসার গড়ার আহবান

সিফাতুল জান্নাহ কবিতা । দুনিয়ার ভাবনা ছেড়ে জান্নাতে সংসার গড়ার আহবান

হুর তার বউ হবে চায় যেই জন

জান্নাতে চায় সে করতে মিলন।

জানতে যদি তুমি কোন সে মেয়ে

কার সাথে চাও তুমি করতে বিয়ে

যত আছে টাকাকড়ি আশয় বিষয়

তার পিছে খরচে করে দিতে ব্যায়।

ঠিকানাটা তার যদি থাকতো জানা

আশু সেথা প্রস্তাবে দিতেই হানা

ভেবে নিতে রুপে-গুনে মুগ্ধ হয়ে

প্রস্তাব দেবে কেউ আগেই গিয়ে।

বাড়ির পথটা আমি বয়ান করি

মিলন করতে হলে করো না দেরি।

ছুটে যাও ত্বরা করে যতটা পারো

ঘোড়াটার পিঠে সদা চাবুক মারো

সফরের রাস্তা তো খুব বেশি নয়

অবিরাম ছুটে চলো অল্প সময়।

তাকে পাবে কিভাবে এবার শোনো

মৃত্যুর আগে দেখা হবে না যেনো

তার সাথে প্রেম করে থাকবে আশায়

মিলনের ভাবনায় ভরাবে হৃদয়

তাকে পেতে দুনিয়াতে যখন যেমন

করে যাবে মালিকের আদেশ পালন

এই তার মোহরানা রবের নিকট

যতদিন না আসে মৃত্যু শকট।

তার আগে কটাদিন থাকবে উপেস

পাপ কাজে ভিড়বার করো না সাহস

মরনের পর পাবে নতুন জীবন

হুরদের সাথে সেথা করবে মিলন

জান্নাতী বাগে হবে তোমার বাসর

রমজান শেষে যেনো ঈদুল ফিতর।

সফরের সব বাধা পার হয়ে যাও

তাকে নিয়ে গান গেয়ে সময় কাটাও

মাঝে মাঝে সফরে আসবে বিপদ

একটু সবরে ফের হবে নিরাপদ।

রাজার প্রাসাদ ভেবে হয়োনা বিভর

সে ঘরের যত সব কুটিলা নারী

সেদিকে দৃষ্টি দিয়ে করো না দেরি

আবাসের সেথা কোনো নেই পরিবেশ

ভাঙন পচন ধরে সবই তার শেষ।

সুখ আর শানিত নিয়েছে বিদায়

পুরুপু ভরে গেছে শুধু বেদনায়।

কারাগারে রবে হেথা মুমন সবে

কাফির দলেই এক স্বর্গ্ ভাবে।

সবসাস করে যারা হেথা বহুদিন

নীচ, হীন লোক আর বেহায়া বেদ্বীন।

অজ্ঞতা অনাচার আর সব রোগ

আছে যার সেই হেথা করে উপভোগ।

অফুরান লোকে করে নাচ আর গান

বিরান হয়েছে সব দ্বীনী ময়দান।

দুনিয়ার বিলাসে মেতেছে সবাই

স্থায়ী আবাসের ভাবনাটা নাই।

অধিক আশায় ভরা সবার হৃদয়

ভাগ্যের খোজে কাটে ব্যস্ত সময়।

রাতদিন ছেদহীন কষ্ট ও ক্লেশ

দু্র্দ্শা, দুঃখের নেই কোনো শেষ।

বুকের ভিতর তার দুঃখের আচড়

টগবগে পানি যেনো চুলার উপর।

আশা আর হতাশার পাহাড় জমে

উদ্বেগ অনুতাপ কভু না কমে।

দেহ তার মনটার কবর খানা

আধার রাজ্যটাই তার ঠিকানা।

ব্যস্ত সবাই তারা সকাল সাঝে

আল্লাহর কাজ ছেড়ে ভিন্ন কাজে।

দাস তার মনিবের গোলামী ছেড়ে

নাফস আর শয়তান পূজন করে ।

লাঞ্চনা বেছে নিলো নিজের হাতে

সঙ্গ দিয়ো না তুমি তাদের সাথে।

দুনিয়ায় যত আছে টাকা, কড়ি, মান

রবের নিকট নয় মশার সমান

একারণে দেখা  যায় কাফির ফাসিক

পাপ কাজে থাকে তবু পাচ্ছে রিযিক।

রবের নিকট নয় এসবের দাম

ছোট্ট মশার এক ডানার সমান

তাই পেয়ে খুশি হয়ে নাচে যার মন

অতিশয় বোকা আর হীন সেই জন।

শয়তানী ছলনার ধোকায় পড়ে

এর পিছে মিছে ঘুরে কষ্টে মরে।

চেষ্টা করেও সবে দুনিয় কি পায়

চেষ্টাটা শেষটায় বৃথা হয়ে যায়।

দুনিয়াকে ভালবেসে চায় যেই জন

অবশেষে ধোকা খায় বোকার মতন

ধোকাবাজ প্রেমিকা প্রেমিক ছেড়ে

নিভৃতে চলে যায় পরের ঘরে।

দুনিয়াবী রাজ্যটা ছলনার নাম

হেথা নেই কষ্টের নির্ভুল দাম।

যুগে যুগে দুনিয়ার প্রেমিক যারা

ধোকা খেয়ে কাম তার হয়েছে সারা

এ যুগের দুনিয়ার সকল প্রেমিক

এই হবে পরিনাম জানিও সঠিক।

ছেলে বুড়ো কত লোকে কত না দেশে

কষ্টে জীবন তার গেলোই শেষে

চেষ্টার ফল তার বৃথাই হলো

দুনিয়ার পিছু ঘুরে কিছু না পেলো।

দেখে শুনে শিক্ষাটা ঠিক নিয়ে নাও

মহন রবের কাজে মনটা বসাও।

সিফাতুল জান্নাহ কবিতা পড়া শেষ হলে আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.